১০ টাকায় ব্যাংক হিসাব খুলেও নেওয়া যাবে সরকারি অর্থ সহায়তা

0

কওমিকণ্ঠ ডেস্ক : বৈশ্বিক মহামারী করোনাভাইরাসে ক্ষতিগ্রস্ত ৫০ লাখ পরিবারের মধ্যে যাদের মোবাইল ব্যাংকিং হিসাব খোলা সম্ভব নয়, তারা ১০ টাকায় ব্যাংক হিসাব খুলেও সরকারের নগদ অর্থ সহায়তা নিতে পারবে। ব্যাংকগুলো ১০ টাকায় আমানত সংবলিত হিসাবের মাধ্যমে এ অর্থ বিতরণ করতে পারবে।

আজ সোমবার বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। এর আগে শুধু বিকাশ, রকেট, নগদ ও শিওরক্যাশের মাধ্যমে অর্থ সহায়তা নেওয়ার সুযোগ ছিল।

করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত ৫০ লাখ পরিবারকে আড়াই হাজার টাকা করে দেওয়ার উদ্যোগ নেয় সরকার। এই পুরো টাকা দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয় মোবাইলে আর্থিক সেবা দাতা ৪ প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে। এর মধ্যে ডাক বিভাগের সেবা নগদের মাধ্যমে ১৭ লাখ পরিবারকে, বিকাশের মাধ্যমে ১৫ লাখ পরিবারকে, রকেটের মাধ্যমে ১০ লাখ পরিবারকে এবং শিওরক্যাশের মাধ্যমে ৮ লাখ পরিবারকে সহায়তা দেওয়ার কথা ছিল।

তবে সর্বশেষ হিসাবে, অর্ধেক পরিবারের কাছেও এই সহায়তা পৌঁছেনি। এজন্য ব্যাংকগুলোকে এই সেবায় যুক্ত করলো কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত ৫০ লাখ পরিবারের মধ্যে নগদ অর্থ সহায়তা প্রদানের জন্য প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে বেশকিছু সিদ্ধান্ত গ্রহন করা হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে, যেসব উপকারভোগীর মোবাইল ফোন নেই এবং যাদের পক্ষে এমএফএস হিসাব খোলা সম্ভব নয়; তাদের জাতীয় পরিচয় পত্র বা স্মার্ট কার্ডের তথ্যের ভিত্তিতে ১০ টাকা আমানতের হিসাব খোলা যাবে।

এতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার প্রত্যয়ন লাগবে। চেক বই না থাকলে ডেবিট ভাউচারের মাধ্যমে উপকারভোগীদের অর্থ দেওয়ার ব্যবস্থা করতে হবে। কোনো উপকারভোগীর আগে থেকেই ব্যাংক হিসাব থাকলে তার নতুন করে হিসাব খোলার প্রয়োজন নেই।

ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  

Comment

Share.